Saturday, February 24, 2024
HomeBUISINESSUnknown Ratan Tata অজানা রতন টাটা

Unknown Ratan Tata অজানা রতন টাটা

Unknown Ratan Tata অজানা রতন টাটা

ইন্ডিয়া নিউজ বাংলা,কলকাতা:  ১৯৩৭ সালের ২৮ ডিসেম্বর, গুজরাতের সুরাটে জন্ম ভারতের অন্যতম সফল ব্যবসায়ীর। রতন টাটার বাবা ছিলেন নওয়ল টাটা এবং মা হলেন সুনি টাটা। রতন টাটার বাবা নওয়ল টাটাকে দত্তক নিয়েছিলেন টাটা গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা জামশেদজি টাটার নিঃসন্তান ছোট ছেলে।

Unknown Ratan Tata বেরঙিন  শৈশব

রতন টাটার জীবনী অনেকটাই সিনেমার গল্পের মত। তাঁর শৈশব মোটেই রঙিন ছিল না। নওয়ল টাটা দ্বিতীয় বিয়ে করে রতন টাটা এবং তাঁর মাকে অসহায় এক জীবনের দিকে ঠেলে দিয়েছিলেন। এই অসহায় শিশু ও তার মায়ের ভরণপোষণের দায়িত্ব নিয়েছিলেন নওয়ল টাটার মা লেডি নাভাজবাই। ফলে ছোটবেলা থেকেই তিনি তাঁর ঠাকুমার কাছে বড় হয়েছেন।

Unknown Ratan Tata সাধারণ কর্মচারী হিসাবে যাত্রা

মুম্বইয়ের এক স্কুলে প্রাথমিক পড়াশোনা শুরু করেন রতন টাটা। তারপর ক্যাথেড্রাল অ্যান্ড জন ক্যানন স্কুল থেকে মাধ্যমিক উত্তীর্ণ হন। এরপর তিনি পড়াশোনা করেছেন আর্কিটেকচার, স্ট্রাকচারাল ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে। হাভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়েছেন অ্যাডভান্স ম্যানেজমেন্ট নিয়ে। এরপর জড়িয়ে পড়েন পারিবারিক ব্যবসায়। টাটা গ্রুপের সঙ্গে কর্মসূত্রে তার পরিচয় ১৯৬১ সালে। কাজ শুরু করেন টাটা স্টিলে। একেবারে শুরুতে একজন সাধারণ কর্মচারীর মত ব্লাস্ট ফার্নেস সরানোর মতো কাজ পেয়েছিলেন তিনি। ১৯৯১ সালে জে.আর.ডি টাটা রতন টাটার মেধা ও পরিশ্রম করার মানসিকতা দেখে মুগ্ধ হন। তিনি রতন টাটাকে টাটা গ্রুপের চেয়ারম্যান হিসাবে মনোনিত করেন। যা নিয়ে সমালোচনাও হয়েছিল অনেক। কিন্তু বিস্ময়ের সঙ্গে সকলে দেখল ভারতের একটি সাধারণ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে কিভাবে তিনি আন্তর্জাতিক পরিচিত করেন। সঠিক ব্যবসায়িক পরিকল্পনা, আত্মবিশ্বাস ও ঝুঁকি নিয়ে রতন টাটা দেখিয়ে দিলেন মানুষ চাইলে স্বপ্নকেও ছুঁয়ে দেখতে পারে। ২০১২ সালের ডিসেম্বর টাটা গ্রুপ থেকে অবসর নেন তিনি। ভারত ছাড়াও ইউরোপ,উত্তর আমেরিকা,দক্ষিণ আমেরিকার অনেক দেশে রয়েছে টাটাদের ব্যবসা।

Tata Motors logos are seen at their flagship showroom before the announcement of their Q3 results in Mumbai February 14, 2013. REUTERS/Vivek Prakash/File Photo

Unknown Ratan Tata পদ্মভূষণ ও পদ্মবিভূষণ প্রাপক

২০০৭ সালে তিনি প্রথম ভারতীয় হিসাবে F-16 ফ্যালকনের পাইলট হন। ২০০৯ সালে তিনি এমন একটি গাড়ি তৈরির প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন যেটির দাম মাত্র এক লাখ এবং মধ্যবিত্তের পক্ষে ব্যয় ভার বহন করা সম্ভব। এই প্রতিশ্রুতি থেকেই জন্ম হয় টাটা ন্যানোর।রতন টাটা ভারতের দুটি সর্বোচ্চ অসামরিক পুরস্কার প্রাপক। ২০০০ সালে পদ্মভূষণ এবং ২০০৮ সালে পদ্মবিভূষণ দিয়ে ভাতর সরকার তাঁকে সন্মান জানান। আজ এই ব্যবসায়িক টাইকুনের ৮৪ তম জন্মদিন।

RELATED ARTICLES
Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it

Most Popular