Saturday, February 24, 2024
HomeBreakingশুভেন্দুর স্বাস্থ্যভবন অভিযান ঘিরে ধুন্ধুমার, গেট টপকে ঢোকার চেষ্টা নন্দীগ্রামের বিধায়কের

শুভেন্দুর স্বাস্থ্যভবন অভিযান ঘিরে ধুন্ধুমার, গেট টপকে ঢোকার চেষ্টা নন্দীগ্রামের বিধায়কের

রাজ্য জুড়ে ডেঙ্গুর ভয়াবহ পরিস্থিতি নিয়ে আজ বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর নেতৃত্বে স্বাস্থ্যভবনে অভিযান চালায় বিজেপি বিধায়করা। বিজেপির পরিষদীয় দলের প্রায় বিধায়ক-বিধায়িকাগণ স্বাস্থ্যভবনে পিটিশন জমা দিতে গেলে পুলিশ স্বাস্থ্য ভবনে ঢুকতে বাধা দেন। রাজ্যের বিরোধী দলনেতা সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে এর তীব্র নিন্দা প্রকাশ করেন।
সকাল ১১.৪৫ মিনিট নাগাদ কলকাতায় স্বাস্থ্য ভবনে ঢুকতে বাধা দেওয়া হল রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী কে সঙ্গে ছিলেন একাধিক বিজেপি বিধায়ক । তাদের বাধা দেওয়া হলে স্বাস্থ্য ভবনের সামনেই বিক্ষোভ দেখলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী সহ বিজেপি বিধায়করা । পুলিশের সঙ্গে বাকযুদ্ধে জড়ান রাজ্যের বিরোধী দলনেতা।
রাজ্যে ভয়াবহ আকার নিয়েছে ডেঙ্গি সংক্রমণ। একের পর এক ডেঙ্গিতে মৃত্যুর ঘটনা ঘটছে। এই ডেঙ্গি পরিস্থিতি নিয়ে গতকাল নবান্নে বৈঠক করেছেন রাজ্যের মুখ্যসচিব। সাত জেলায় ডেঙ্গির বাড়বাড়ন্ত ধরা পড়েছে। এই নিয়ে জেলা শাসক এবং স্বাস্থ্যভবনকে সতর্ক করা হয়েছে। প্রতিমুহূর্তে পরিস্থিতি নজরে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
রাজ্যের এই ডেঙ্গি পরিস্থিতি সরকার গোপন করতে চাইছে বলে অভিযোগ করেছেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা। তারই প্রতিবাদে স্বাস্থ্যভবন অভিযানের ডাক দিয়েছিলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। সেই মতোই আজ সকালে স্বাস্থ্য ভবনের সামনে মিছিল করে হাজির হন বিজেপি বিধায়ক এবং কর্মীরা।
কিন্তু স্বাস্থ্যভবনে ঢুকতে বাধা দেওয়া হয় তাদের। পুলিশ এবং নিরাপত্তারক্ষীরা তাদের স্বাস্থ্যভবনে ঢুকতে বাধা দেয়। এই নিয়ে পুলিশের সঙ্গে বচসা বাধে বিরোধী দলনেতার। জোর করে গেট টপকে ঢোকার চেষ্টা করেন তিনি। কিন্তু পুলিশ তাকে টেনে নিয়ে আসে। পুলিশের আচরণে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে রাজ্যের বিরোধী দলনেতা অভিযোগ করে বলেছেন, ‘স্বাস্থ্যভবন কি কেবল তৃণমূল কংগ্রেসের একার। ২০ থেকে ২২ জন বিরোধী দলের বিধায়ককে কেন ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না তৃণমূল ক্ষমতায় আসার আগে এই ভবন তৈরি হয়েছে। যাঁরা ভেতরে রয়েছেন তাঁরা ট্যাক্সের টাকায় বেতন পান।’

RELATED ARTICLES
Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it

Most Popular