Sunday, March 3, 2024
Homeওয়েস্ট বেঙ্গলMassive Tensions in KMC elections পুরভোটে ব্যাপক উত্তেজনা, শাসকদলের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ...

Massive Tensions in KMC elections পুরভোটে ব্যাপক উত্তেজনা, শাসকদলের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ বিরোধীদের

শুভাশিস মণ্ডল, ইন্ডিয়া নিউজ বাংলা : কলকাতা পুরভোটে সকাল ৯টা পর্যন্ত ভোটদানের হার ৯.০৭ শতাংশ। এদিকে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই কলকাতা পুরভোট নিয়ে উত্তেজনা চরমে। শাসকদলের বিরুদ্ধে শহরের নানান প্রান্ত থেকে একের পর এক অভিযোগ বিরোধীদের। কোথাও পুলিশের সামনেই হুমকি আবার কোথাও বা প্রকাশ্যে শাসানির অভিযোগ।

Massive Tensions in KMC elections পুরভোটে ব্যাপক উত্তেজনা, শাসকদলের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ বিরোধীদের

সকাল সকাল ৭ নম্বর ওয়ার্ডে নির্দল প্রার্থী রূপা চৌধুরী নিজেই এজেন্ট হিসেবে বসতে চাওয়ায় উত্তেজনা তৈরি হয়। শ্যামপুকুরে ৭ নম্বর ওয়ার্ডে শ্রীরামকৃষ্ণ হোমে বিজেপি প্রার্থী ব্রজেশ ঝায়ের সঙ্গে পুলিশের ধস্তাধস্তি। তাঁর অভিযোগ, নির্দল প্রার্থীকে বুথ থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে। প্রিসাইডিং অফিসার ও সেক্টর অফিসারের বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ তুলেছেন বিজেপি প্রার্থী। নাটক করছে বিজেপি, পাল্টা অভিযোগ করেছে তৃণমূল কংগ্রেস।

বেলেঘাটার ফুলবাগান এলাকায় ৩০ নম্বর ওয়ার্ডে বোমাবাজির অভিযোগ উঠেছে। পাশাপাশি তৃণমূলের ক্যাম্প অফিস ভাঙচুরের অভিযোগও উঠেছে। তবে বোমাবাজির অভিযোগ অস্বীকার করেছে কলকাতা পুলিশ। অন্যদিকে বেলেঘাটার ৩৬ নম্বর ওয়ার্ডের খান্না হাই স্কুলের সামনে পরপর দু’টি বোমা পড়ায় ব্যাপক উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। বোমাবাজি নিয়ে পাল্টা দোষারোপ চলছে উভয়পক্ষের মধ্যে।

১৭ নম্বর ওয়ার্ডের কেন্দুয়া গার্লস হাইস্কুলে তৃণমূলের বিরুদ্ধে বুথ দখলের অভিযোগ করেছে বামেরা। ঘটনায় রিপোর্ট তলব করেছে নির্বাচন কমিশন। অন্যদিকে, ৫ নম্বর ওয়ার্ডে বিজেপি এজেন্টকে বুথে ঢুকতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে। ২২ নম্বর ওয়ার্ডের জোড়াবাগানে বিজেপির হেভিওয়েট প্রার্থী মিনা দেবী পুরোহিতকে হেনস্থার অভিযোগ উঠল। মাহেশ্বরী ভবনের এই বুথে নির্দল প্রার্থী প্রিয়াঙ্কা দেবনাথের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়েন মীনা দেবী পুরোহিত। নির্দল প্রার্থী ও তৃণমূলের বিরুদ্ধে তাঁর পোশাক ছিঁড়ে দেওয়ার অভিযোগ করেছেন বিজেপির এই হেভিওয়েট প্রার্থী।

Massive Tensions in KMC elections পুরভোটে ব্যাপক উত্তেজনা, শাসকদলের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ বিরোধীদের

অন্যদিকে, ৪৫ নম্বর ওয়ার্ডে ব্রাবোর্ন রোডে পুলিশের সামনেই কংগ্রেস-তৃণমূল কর্মীদের মধ্যে হাতাহাতি শুরু হয়। ভুয়ো ভোটারের অভিযোগ তোলেন কংগ্রেস প্রার্থী সন্তোষ পাঠক। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ব্যাপক লাঠিচার্জ করে পুলিশ। অন্যদিকে মানিকতলায় বিরিয়ানি খাইয়ে ভোটারদের প্রভাবিত করার অভিযোগ উঠেছে ২৮ নম্বর ওয়ার্ডে বিজেপির বিরুদ্ধে। মেটিয়াবুরুজে ১৩৭ নম্বর ওয়ার্ডে ৬টি বুথে দরজা বন্ধ করে ছাপ্পা ভোট দেওয়ার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে। কংগ্রেস ও নির্দল প্রার্থীর অভিযোগ, পুলিশের সামনেই বুথে ঢুকতে বাধা দেওয়া হয়। তালতলায় পুলিশের সামনেই তৃণমূল ও কংগ্রেস কর্মীদের মধ্যে হাতাহাতির খবর পাওয়া গেছে।

RELATED ARTICLES
Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it

Most Popular